শুক্রবার, ২১-সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন
  • জেলা সংবাদ
  • »
  • তুলে এনে প্রেমিককে হত্যার অভিযোগ প্রেমিকার আত্ময়ীদের বিরুদ্ধে

তুলে এনে প্রেমিককে হত্যার অভিযোগ প্রেমিকার আত্ময়ীদের বিরুদ্ধে

Shershanews24.com

প্রকাশ : ১৩ জুন, ২০১৮ ০৮:৩৫ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, নবাবগঞ্জ : ঢাকার দোহার উপজেলার শিলাকোঠা গ্রামে বুধবার সকাল ৮টায় প্রেমঘটিত ঘটনার জের ধরে সুমন দেওয়ান (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে মেয়ে পক্ষের লোকজন। নিহত সুমন উপজেলার চর লটাখোলা গ্রামের ইছাহাক দেওয়ানের ছেলে।
এলাকাবাসী জানায়, ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রী ১২ বছর বয়সের এক কিশোরীর সাথে সুমনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং গত বৃহস্পতিবার সে ঐ মেয়েকে নিয়ে সুমন পালিয়ে যায়। বিষয়টি কিশোরীর স্বজনরা গোপনে খোঁজ নিয়ে জানতে পেরে যে ঢাকার মিরপুরে এক আত্মীয়ের বাসায় তারা অবস্থান করছে।
পরবর্তী সময়ে মেয়ের ফুপাতো ভাই নুর আলম নুরু ও ভগ্নিপতি বাদলসহ বেশ কয়েকজন মিরপুরে গিয়ে জোরপূর্বক তাদেরকে মাইক্রোবাস যোগে দোহারের শিলাকোঠা ফুপুুর বাড়িতে নিয়ে আসে। এসময় তারা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সুমনকে বেদম মারধর করলে সে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।
দোহার থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে আহত অবস্থায় সুমনকে উদ্ধার দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ বিষয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ মাইনুল হাসান বলেন, নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।
স্থানীয়রা জানায়, নিহত সুমন দেওয়ান একাধিক বিবাহের বন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন। তার একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে একাধিক বিবাহের পর ফের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে নিয়ে পালানোর ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে এ ঘটনা ঘটতে পারে।
এবিষয়ে দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন,  আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পেরেছি মেয়ের নিকটতম আত্মীয় ও স্থানীয় কিছু লোকজন সুমন হত্যার সাথে জড়িত রয়েছে।  নিহতের ভাই বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এই ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।
শীর্ষনিউজ/প্রতিনিধি/এসএসআই